ইডেন ছাত্রদল আহ্বায়ক বললেন ‘বয়স জানতে নেই’

প্রকাশিত: ১১:৫০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

ইডেন ছাত্রদল আহ্বায়ক বললেন ‘বয়স জানতে নেই’

স্টাফ রিপোর্টার:
দীর্ঘদিন ধরে ইডেন মহিলা কলেজ শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটির তেমন কোনো কর্মসূচি আলোচনায় নেই। তবে সম্প্রতি কলেজ ছাত্রলীগের দুই পক্ষের কোন্দল নিয়ে গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেওয়ায় আলোচনায় এসেছে ইডেন ছাত্রদলের আহ্বায়ক এবং একইসঙ্গে সদ্যঘোষিত কেন্দ্রীয় পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে থাকা রেহেনা আক্তার শিরিনের নাম।

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের কোন্দল ইস্যুতে গত সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বেসরকারি একটি টেলিভিশনে সাক্ষাৎকার দেন তিনি। সাক্ষাৎকারের একটি স্ক্রিনশট সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে অনেকে তার বয়স নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। ‘বেশি বয়সের একজন নারী’ কীভাবে ছাত্র রাজনীতির সাথে যুক্ত থাকতে পারেন?

জানা গেছে, ইডেন কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক রেহেনা আক্তার শিরিন ২০০৫ সালে এসএসসি এবং ২০০৭ সালে এইচএসসি পাস করেন। পরে ২০০৭ সালেই ইডেন মহিলা কলেজের মার্কেটিং বিভাগে ভর্তি হন। সেই হিসাবে তার ছাত্রত্ব শেষ হয়েছে বহু আগেই। এ ছাড়া তিনি বিবাহিত এবং তার দুটি সন্তান রয়েছে বলেও দাবি করেছেন ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রদলের এক নেত্রী।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কলেজ শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটিতে থাকা ওই নেত্রী বলেন, বিষয়টি (আহ্বায়কের বয়স) নিয়ে আমরাও বিড়ম্বনায় পড়েছি। দুদিন আগেই তার সাক্ষাৎকারের একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। অনেকেই তার বয়স নিয়ে ট্রল করছেন৷ তাছাড়া তার দুটি সন্তান রয়েছে।

তিনি বলেন, নিজ সংগঠনকে নিয়ে আর কী বলব? আমাকেও অনেকে এ বিষয়ে মেসেজ দিচ্ছেন ৷ বিষয়টি নিয়ে আমরা বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছি।

তার বয়স না থাকার পরও কিছুদিন আগে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে তাকে যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকের পদ দেওয়া হয়েছে বলেও জানান ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রদলের ওই নেত্রী।

বয়স, ছাত্রত্ব, বিয়ে ও সন্তানের বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হয় রেহেনা আক্তার শিরিনের সঙ্গে। তিনি বলেন, সরকারি দল ক্ষমতায় থাকলে কতকিছুই তো বলা যায়৷ আমরা জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল করি। রাজপথে আন্দোলন করি৷ সেটা বড় কথা না হয়ে ছাত্রত্বের প্রশ্ন তোলা অবান্তর।

২০০৭ সালে ইডেন কলেজে স্নাতকে ভর্তি হয়ে ২০২২ সাল পর্যন্ত কীভাবে ছাত্রত্ব ধরে রাখলেন এবং আপনার প্রকৃত বয়স কত— জানতে চাইলে শিরিন বলেন, সরাসরি না বললে আপনি বুঝবেন না। তাছাড়া মানুষের বয়স ও বেতন জানতে হয় না।

বিবাহিত এবং সন্তান থাকার বিষয়টিও অস্বীকার করেন ইডেন ছাত্রদলের আহ্বায়ক রেহেনা আক্তার শিরিন।

২০২০ সালের ২৪ জুলাই ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল৷ কমিটিতে আহ্বায়ক হিসেবে রেহানা আক্তার শিরিন, যুগ্ম-আহ্বায়ক হিসেবে সৈয়দা সুমাইয়া পারভীন, জান্নাতুল ফেরদৌস, সদস্যসচিব হিসেবে সনজিদা ইয়াসমিন তুলি এবং সদস্য হিসেবে তোহফা মোস্তফা, অনিকা চৌধুরী, শিখা আক্তার, স্বর্ণালীকে দায়িত্ব দেওয়া হয়৷

এদিকে গত ১১ সেপ্টেম্বর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে ছাত্রদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। পূর্ণাঙ্গ কমিটিতেও স্থান পেয়েছেন রেহেনা আক্তার শিরিন।

রেহেনা আক্তার শিরিনের ছাত্রত্ব ও পদের বিষয়ে জানতে চাইলে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম বলেন, কেউ যদি সমালোচনা করেন, তবে তা তার ব্যক্তিগত বিষয়৷ আমরা সার্টিফিকেট ও সিভি যাচাই-বাছাই করেই তাকে পদ দিয়েছি।

তিনি বলেন, যে কেউ অভিযোগ ঢালাওভাবে করতেই পারেন৷ ছাত্রলীগ যদি ছাত্রদলকে ব্লেম দেয়, আমরা তো কিছু করতে পারি না। আমরা তার সার্টিফিকেট দেখেছি, রেজিস্ট্রেশনের ফটোকপি আমাদের কাছে আছে৷ আমাদের নিয়ম মেনেই তাকে কমিটিতে রাখা হয়েছে৷ আর ইডেন কলেজে নতুন কমিটি দেওয়ার চিন্তা-ভাবনা আছে ৷

 

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আর্কাইভ

December 2022
M T W T F S S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com