বালাগঞ্জে ঘর পুড়লেও অক্ষত পবিত্র কুরআন

প্রকাশিত: ১২:৪৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২২

বালাগঞ্জে ঘর পুড়লেও অক্ষত পবিত্র কুরআন

বালাগঞ্জ প্রতিনিধি:
বালাগঞ্জে বড় রকমের একটি অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সম্পূর্ণ বসতঘর পুড়ে গেলেও অক্ষত অবস্থায় পবিত্র কুরআন শরিফ উদ্ধার হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। স্থানীয় শত শত এলাকাবাসী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সরেজমিন পরিদর্শন, গৃহকর্তা এবং এলাকাবাসী জানিয়েছেন, বালাগঞ্জ উপজেলার দেওয়ান বাজার ইউনিয়নের শিওরখাল (বড়জমাত) গ্রামে গত সোমবার (১০ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ঘটে।

স্থানীয় এলাকাবাসী এবং ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা প্রায় ২ঘণ্টা পর আগুন নেভাতে সক্ষম হন। অগ্নিকাণ্ডে ওই এলাকার মো. দিলু মিয়ার পাকা (টিনসেট) ঘরের দু’টি কক্ষের সম্পূর্ণ মালামাল পুড়ে গেছে। ঘটনায় নগদ ৪ লাখ টাকাসহ আনুমানিক ১৫/১৬ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে গৃহকর্তা মো. দিলু মিয়া জানিয়েছেন।

 

অবশ্য ঘরে থাকা পবিত্র কুরআন শরিফ অলৌকিকভাবে প্রায় অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ওসমানীনগরের তাজপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা রাত ১১টার দিকে আগুন নেভাতে সক্ষম হন।

 

সূত্রে জানায়, ঘটনার সময় বসতঘরটি তালাবদ্ধ ছিল। গৃহকর্তা মো. দিলু মিয়া বাজার করতে মাদ্রাসাবাজারে অবস্থান করছিলেন। এছাড়া তার স্ত্রী, সন্তান আত্মীয় বাড়িতে ছিলেন। স্থানীয় এলাকাবাসী অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে অবহিত হলে এ বিষয়ে মসজিদের মাইকে ঘোষণা প্রদান করা হয়। প্রথমে এলাকাবাসী এগিয়ে এসেও আগুন নেভাতে পারেননি। অবশেষে ওসমানীনগর উপজেলার তাজপুর ফায়ার স্টেশনের কর্মীরা ছুটে এসেছে আগুন নেভাতে সক্ষম হন।

 

অগ্নিকাণ্ডে বসতঘরের (টিনসেট পাকা) দু’টি কক্ষের সম্পূর্ণ মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে জানিয়ে গৃহকর্তা মো. দিলু মিয়া জানান, অগ্নিকাণ্ডে অন্যান্য মালামালের পাশাপাশি তার ঘরে থাকা নগদ ৪লাখ টাকা পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। তবে নগদ ৪৫ হাজার টাকা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছেন।

 

এছাড়া স্বর্ণের দু’টি বালা এবং একটি গলার হার উদ্ধার হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা এবং এলাকাবাসী জানিয়েছেন, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হতে পারে।

 

দেওয়ান বাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক হাজী এমএ মালেক, ইউপি সদস্য হাজী মোহাম্মদ আলী গোলশের, সাবেক ইউপি সদস্য মাওলানা আজমান আলী, সমাজকর্মী আসলম খাঁন, ফারুক মিয়া, তোফায়েল আহমদ সুহেল, ইউপি সদস্য রুকিয়া বেগমসহ শত শত এলাকাবাসী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এ ঘটনায় প্রায় নিঃস্ব হয়ে পড়া মো. দিলু মিয়ার প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করে এলাকাবাসী সরকার এবং সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতার আহবান জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com