সরকারই খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠাতে পারে : ফখরুল

প্রকাশিত: ৩:৫২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৮, ২০২১

সরকারই খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠাতে পারে : ফখরুল

প্রজন্ম ডেস্ক:

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠাতে আইনি জটিলতা নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, আমরা বারবার বলছি, আপনারা তাকে বিদেশে পাঠান চিকিৎসার জন্য। আমাদের মাথায় আসে না সমস্যাটা কোথায়? কেন আইনের কথা বলছেন, আইন তো ভুল দেখাচ্ছেন আপনারা। আইন দেখায়, বলে আইন মানি না। আইন আমরা মানি।

তিনি আরও বলেন, ৪০১ ধারায় পরিষ্কার করে বলা আছে, সরকারই পারে খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার জন্য পাঠাতে।

আজ রবিবার (২৮ নভেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, গত এক দশকে আমাদের বহু নেতাকর্মীকে আমরা হারিয়েছি। স্বেচ্ছাসেবক দলের অনেক নেতাকর্মী গুম হয়ে গেছে। আজ শুধু স্বেচ্ছাসেবক দল নয়, যুবদল নয়, ছাত্রদল নয়—সারা দেশের মানুষ কারাগারে বাস করছে। ভয়াবহ এক অবস্থার মধ্যে এই বাংলাদেশের মানুষ পড়েছে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া অসুস্থ। অত্যন্ত অসুস্থ, গুরুতর অসুস্থ। প্রতিদিন চিকিৎসকরা তার জীবন রক্ষায় পরিশ্রম করছেন। তাকে যেতে না দেওয়া কেন? তাকে শর্ত সাপেক্ষে আটক রাখা কেন? একটি মাত্র কারণ, খালেদা জিয়া একমাত্র নেত্রী যিনি এই বাংলাদেশের জন্ম থেকে শুরু করে এখনো পর্যন্ত মানুষের জন্য কাজ করছেন।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়া যখন বিরোধী দলীয় নেত্রী ছিলেন গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য ৯ বছর পথে পথে ঘুরে বেড়িয়েছেন। তিনি যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তখন এই দেশের মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করেছেন।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, গণবিরোধী সরকার ডিজেলের দাম বাড়িয়ে দিলো ১৫ শতাংশ। সঙ্গে সঙ্গে বাস মালিকদের-শ্রমিকদের নামিয়ে দিলো ভাড়া বাড়াতে হবে। এই ভাড়া বাড়ানো, জ্বালানির দাম বাড়ানো কার স্বার্থে? আওয়ামী লীগের ওই সব দুর্নীতিপরায়ন সিন্ডিকেট নিজেদের পকেট ভারী করার জন্য জনগণের পকেট কাটছে।

তিনি বলেন, সরকার বলছে আমরা বিআরটিসির ভাড়া তো কমালাম কিন্তু প্রাইভেট বাসের ভাড়া তো কমাতে পারবো না। তোমরা প্রাইভেট টেলিফোন-মোবাইল কন্ট্রোল করতে পার, প্রাইভেট সব কিছু নিয়ন্ত্রণ করতে পার। বাস ভাড়া শিক্ষার্থীদের জন্য কমিয়ে দিয়ে সেখানে যদি ভর্তুকি দিতে হবে তা তোমরা দেবে না কেন? আজ এই সমাবেশ থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের দাবির প্রতি আমরা সমর্থন জানাচ্ছি। দাবি করছি অবিলম্বের তাদের হাফ পাস দেওয়া হোক এবং প্রয়োজনে সরকার ভর্তুকি দেবে।

সরকারের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, প্রত্যেকটা ক্ষেত্রে এই সরকার রাষ্ট্র পরিচালনায় সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। আর এ কারণেই তারা খালেদা জিয়ার চিকিৎসা করাতে যেতে দিতে চায় না। তিনি যদি সুস্থ হয়ে জনগণের মধ্যে ফিরে আসেন তাহলে এদের এই দুর্নীতি, এদের গণবিরোধী কাজ, জনগণের অধিকার খালেদা জিয়া আদায় করবেন। সেই জন্য তারা তাকে মুক্তি দিতে চান না, চিকিৎসা করাতে চান না।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া সাধারণ নাগরিক নন। তিনি মুক্তিযুদ্ধের একজন সাহসী সৈনিক। ১৯৭১ সালে তিনি পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর হাতে বন্দি ছিলেন। পরবর্তীকালে তিনি ৯ বছর ধরে এরশাদ সরকারের বিরুদ্ধে গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন। তারপর থেকে এখন পর্যন্ত গণতন্ত্রের জন্য, মানুষের অধিকারের জন্য জীবন-মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন। খালেদা জিয়াকে আমাদের দরকার। বিএনপির জন্য নয়, খালেদা জিয়াকে দরকার এ দেশের ১৮ কোটি মানুষের জন্য। একজন মাত্র মানুষ আছে যিনি গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে পারেন। আমাদের অধিকারগুলো ফিরিয়ে দিতে পারেন। সেই জন্য তাকে বিদেশে পাঠিয়ে চিকিৎসার জন্য আমরা দাবি জানাচ্ছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আর্কাইভ

January 2022
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com