লিবিয়ায় থাকা প্রবাসীদের নিরাপত্তায় সহযোগিতা চাইলেন রাষ্ট্রদূত

প্রকাশিত: ৬:১৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৩, ২০২১

লিবিয়ায় থাকা প্রবাসীদের নিরাপত্তায় সহযোগিতা চাইলেন রাষ্ট্রদূত

প্রজন্ম ডেস্ক:

লিবিয়ায় বসবাসরত প্রবাসীদের নিরাপত্তা, আকামা সম্পাদন ও ছুটিতে আসা-যাওয়ার প্রক্রিয়া সহজীকরণে সহযোগিতা চেয়েছেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল এস এম শামিম উজ জামান। এছাড়াও অবৈধ অভিবাসন নিয়ন্ত্রণসহ বিভিন্ন বিষয়ে সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) লিবিয়ার বাংলাদেশ দূতাবাস জানায়, রাষ্ট্রদূত নেতৃত্বে দূতাবাসের একটি প্রতিনিধি দল সম্প্রতি বেনগাজী সফর করেন। সফরকালে বেনগাজীসহ পূর্বাঞ্চলে বসবাসরত প্রবাসীদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে লিবিয়া সরকারের বিভিন্ন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন রাষ্ট্রদূত।

 

বৈঠকে মধ্যে লিবিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আন্ডার সেক্রেটারি বশির আল-আমিনের সঙ্গে রাষ্ট্রদূত প্রবাসীদের নিরাপত্তা, আকামা সম্পাদন ও ছুটিতে আসা-যাওয়ার প্রক্রিয়া সহজীকরণ এবং অবৈধ অভিবাসন নিয়ন্ত্রণসহ বিভিন্ন বিষয় আলোচনা করেন। এ সময় তিনি এসব সমস্যা সমাধানে সহযোগিতা চান।

লিবিয়ার সরকারের কর্মকর্তারা দুঃসময়ের মধ্যেও বাংলাদেশিরা এদেশে অবস্থান করে কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ায় বিশেষ করে, বেনগাজীসহ পূর্বাঞ্চলে কর্মরত বাংলাদেশিদের সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

 

রাষ্ট্রদূত বেনগাজী সফরে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করেন। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশের বিভিন্ন রফতানিযোগ্য পণ্য সম্পর্কে তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। রাষ্ট্রদূত আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) আঞ্চলিক পরিচালকের সঙ্গে বৈঠক করে পূর্বাঞ্চল থেকে স্বেচ্ছায় ফেরত যেতে ইচ্ছুক প্রবাসীদের দেশে প্রত্যাবাসনে সহযোগিতা কামনা করেন।

 

দূতাবাস জানায়, সফরকালে দূতাবাসের প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে বেনগাজী এবং তার আশেপাশের শহরে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের কনস্যুলার এবং বিভিন্ন কল্যাণ সেবা দেওয়া হয়। এ সময় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক প্রবাসী তাদের ডিজিটাল পাসপোর্ট রিইস্যুর আবেদন, পূর্বে আবেদন করা ডিজিটাল পাসপোর্ট গ্রহণ, ট্রাভেল পারমিট (আউটপাস) গ্রহণ, দেশে ছুটিতে যাওয়ার প্রত্যয়নপত্র গ্রহণ, নতুন পাসপোর্টে ভিসার জন্য/হারানো পাসপোর্টের জন্য সার্টিফিকেট গ্রহণ এবং বিভিন্ন কাগজপত্র সত্যায়নের কার্যক্রম সম্পন্ন করেন।

অন্যদিকে বেনগাজীসহ পূর্বাঞ্চলে বসবাসরত প্রবাসীরা তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এ সময় তারা বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা সম্পর্কে মতবিনিময় করেন। রাষ্ট্রদূত সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে দেশের ভাবমূর্তি বর্ধনে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com