প্রকাশনার ১৫ বছর

রেজি নং: চ/৫৭৫

২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১০ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
১৮ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

সুজন হত্যার দাবী নিয়ে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা বন্ধে উথাল দিরাই

admin
প্রকাশিত
সুজন হত্যার দাবী নিয়ে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা বন্ধে উথাল দিরাই

দিরাই প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশার চাপায় সুজন দে(১৭) নামের এক কিশোর নিহতের ঘটনায় ক্ষেপে উঠেছে বিক্ষোপ্ত জনতা। নিহত সুজন পৌরশহরের মজলিশপুর গ্রামের নান্টু দে’র মধ্যম ছেলে।সে দিরাই উচ্চ বিদ্যালয়ের এস,এস,সি পরীক্ষার্থী ছিল।

বুধবার (২৩ অক্টোবর ১৯) দুপুর আড়াইটার দিকে হারনপুর – ঘাগটিয়া সড়কে মজলিশপুর গ্রামের বিকাশ দে’র দোকান সংলঘ্ন স্থানে উল্টোদিক থেকে অতিরিক্ত স্পিডে আসা একটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার চাপায় সুজন আহত হয় । আহত সুজনকে স্থানীয়রা দিরাই সরকারি হাসপাতালে নিলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে সিলেট রেফার করে। সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সন্ধা ৬ টার দিকে সুজন মৃত্যুবরণ করলে দিরাই পৌরসদরের স্থানীয় জনতা বিক্ষোভে ফেটে পরে। দিরাই পৌরসদরের প্রধান সড়কে বিক্ষোভ মিছিল বের করে থানা ঘেরা করলে পুলিশ আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে বিক্ষোভ মিছিলটি থামানো হয়।

এদিকে হারনপুর – ঘাগটিয়া সড়কে সুজন হত্যার প্রতিবাদে ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা বন্ধের দাবী নিয়ে সড়ক অবরোধ করে রেখেছে একদল যুবক। পৌরসদরের এই ছোট সড়কে দিনরাত ভর অতিরিক্ত স্পিডে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল করে এতে সুজনের মত অকালে আর প্রাণ জড়ে যেথে পারে তাই অটোরিকশা বন্ধের দাবী মজলিশপুর ও হারনপুর গ্রামবাসীর।

দিরাই পৌর শহরের বাগবাড়ি এলাকায় এর আগে ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ সালে ইজিবাইকের চাপায় প্রাণ হারিয়ে ছিল স্বর্ণালী বেগম (৭) নামের দ্বিতীয় শ্রেণীর এক শিশু শিক্ষার্থী।

সংবাদটি শেয়ার করুন।