প্রকাশনার ১৫ বছর

রেজি নং: চ/৫৭৫

২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
১৩ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

‘গৌতম গম্ভীর নিখোঁজ, হন্যে হয়ে খুঁজছে দিল্লিবাসী’

admin
প্রকাশিত
‘গৌতম গম্ভীর নিখোঁজ, হন্যে হয়ে খুঁজছে দিল্লিবাসী’

নয়াদিল্লির আইটিও এলাকার স্থানে স্থানে পোস্টার লাগানো হয়েছে। তাতে লেখা, গৌতম গম্ভীর নিখোঁজ। আপনারা কি কেউ দেখেছেন? একজন সংসদ সদস্য কীভাবে উধাও হয়ে গেলেন?

দিল্লির দূষণ নিয়ে গেল শুক্রবার বিধানসভার স্ট্যান্ডিং কমিটির সভা হয়। রাজ্যের ২৯ জন সাংসদের মধ্যে আসেন মাত্র চারজন। এ বৈঠকে তাদের নিয়ে আসার জন্য গাড়ির ব্যবস্থাও করেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু। তবে সব চেষ্টাই বিফলে যায়।

অতীতে দিল্লির দূষণ নিয়ে বারবার আম আদমি পার্টিকে আক্রমণ করেন গম্ভীর। সেই তিনিই দূষণ নিয়ে সংসদের স্ট্যান্ডিং কমিটির বৈঠকে উপস্থিত হননি। স্বভাবতই তাকে পাল্টা আক্রমণ করতে ছাড়েনি প্রতিপক্ষ দলটি!

সবশেষ ভারত-বাংলাদেশ টেস্টে ইন্দোর ধারাভাষ্যকারের দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে সাবেক ভারতীয় ওপেনার গম্ভীরকে। ওই ম্যাচের ফাঁকে স্থানীয় ঐতিহ্যবাহী জিলাপি ও পোহা খেতে দেখা যায় তাকে। সঙ্গে ছিলেন আরেক সাবেক ভারতীয় ব্যাটসম্যান ভিভিএস লক্ষ্মণ এবং ধারাভাষ্যকার যতীন সাপ্রু।

মুহূর্তেই সেই দৃশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। সেটিই কাজে লাগিয়েছে প্রতিপক্ষরা!গম্ভীরের সেই ছবি দিয়ে পোস্টার বানিয়েছে তারা! পরে জায়গায় জায়গায় লাগিয়েছে!

তাতে লেখা, আপনারা কেউ কি এ ব্যক্তিকে দেখেছেন? শেষবার তাকে ইন্দোরে জিলাপি খেতে দেখা গেছে। এরপর নিখোঁজ তিনি। গোটা দিল্লি তাকে হন্যে হয়ে খুঁজছে। কারো কাছে কোনো তথ্য থাকলে অনুগ্রহ করে জানাবেন।

পূর্ব দিল্লি লোকসভা কেন্দ্র থেকে ব্যাপক ভোটে জয়লাভ করে বিজেপি এমপি নির্বাচিত হন গম্ভীর। নির্বাচনের আগে বিভিন্ন ইস্যুতে আম আদমি পার্টির নেতাদের আক্রমণ করেন তিনি। এ আইনপ্রণেতাকে প্রতি আক্রমণে অভিনব কাজটি যে দলটিই করেছে তা জোর দিয়েই বলা যায়!

গম্ভীর অবশ্য এদিনই বলেন,আমার কাজই জবাব দেবে। অকারণে আক্রমণ করে সমস্যার সমাধান হলে করতে থাকুন।

সংবাদটি শেয়ার করুন।