প্রকাশনার ১৫ বছর

রেজি নং: চ/৫৭৫

২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
১৭ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

গড়াপেটার অভিযোগে উত্তাল বিপিএল: আনন্দবাজার

admin
প্রকাশিত
গড়াপেটার অভিযোগে উত্তাল বিপিএল: আনন্দবাজার

স্টাফ রিপোর্টার:
আবারো বিতর্কের কালো ছায়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল)। এবার একই ওভারে বিশাল ওয়াইড ও নো বল করে আলোচনায় সিলেট থান্ডারের ক্যারিবীয় পেসার ক্রিসমার সান্তোকি। উঠে আসছে ম্যাচ গড়াপেটার সন্দেহও।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে এবারের আসরের নামকরণ করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু বিপিএল। ঘটনার সূত্রপাত গেল বুধবার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের বিশেষ আসরের উদ্বোধনী দিনে।

ওই দিন হোম অব ক্রিকেট মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় সিলেট থান্ডার ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। সেই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৬২ রান করে সিলেট। জবাবে ১ ওভার ও ৫ উইকেট হাতে রেখে ম্যাচ জিতে নেয় চট্টগ্রাম।

চট্টগ্রামের ব্যাটিং ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে বল করতে আসেন সান্তোকি। অতীতে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের হয়ে আইপিএলে খেলেন তিনি। সেই মুহূর্তে ক্রিজে ছিলেন আবিষ্কা ফার্নান্দো। সেই ওভারের তৃতীয় বলটা ওভার দ্য উইকেটে করেন সান্তোকি। বল ছুড়েন ফুলটস। ব্যাটসম্যানের লেগ সাইডের অনেক বাইরে পড়ে তা বেরিয়ে যায়।বামপ্রান্তে ঝাঁপিয়ে বলটি গ্লাভসবন্দি করেন উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ মিঠুন। ফিল্ড আম্পায়ার ডাকেন ওয়াইড।

এতে রীতিমতো বিস্মিত হয়ে যান ধারাভাষ্যকাররা। তাদের কথায়, টেস্টেও এটা ওয়াইড ডাকতে হবে। এর ২ বল পরই সবাইকে অবাক করে একটি নো বল করেন সান্তোকি। ওই সময় তার সামনের পা পপিং ক্রিজ থেকে প্রায় ১ মিটার বাইরে ছিল।

টিভিতে এই বল দেখার পরই ধারাভাষ্যকার তার সহকারীকে বলেন, বলটা আরো একবার দেখুন,অবিশ্বাস্য। অপর ধারাভাষ্যকারও বলেন, বিশ্বাসই হচ্ছে না। কীভাবে একজন দাগের বাইরে এতটা এগিয়ে যেতে পারেন!

স্বভাবতই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠেছে। অনেকে বলছেন, এটা কি সত্যি? কেউ কেউ বলছেন, এরকম অস্বাভাবিক ওয়াইড ও নো বল করার কারণ জানাক সান্তোকি।

সংবাদটি শেয়ার করুন।