প্রকাশনার ১৫ বছর

রেজি নং: চ/৫৭৫

১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
৭ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

একদিনে না ফেরার দেশে তরতাজা ৫ জীবন

admin
প্রকাশিত
একদিনে না ফেরার দেশে তরতাজা ৫ জীবন

কুলাউড়া প্রতিনিধি:
মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় একদিনে বিভিন্ন দুর্ঘটনায় ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। জানা গেছে, কাভার্ড ভ্যান ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৩ জন নিহত হয়েছেন। গত রোববার সন্ধ্যায় কুলাউড়া-জুড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কের আছুরিঘাট নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ছাড়া এদিন বিকেলে ও সন্ধ্যায় উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ও কর্মধা ইউনিয়নে ঝড়ে রাস্তার ওপর গাছ ভেঙে এবং গাছের ডাল কাটতে গিয়ে নিচে পড়ে গিয়ে আরও ২ জন নিহত হয়েছেন।

জানা যায়, রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে সিএনজিচালিত অটোরিকশাটি ৫ জন যাত্রী নিয়ে জুড়ীর দিকে যাচ্ছিলো। পথে কুলাউড়া-জুড়ী আঞ্চলিক মহাসড়কের আছুরিঘাট নামক স্থানে পৌঁছলে বিপরীতদিক থেকে আসা একটি পণ্যবাহী কাভার্ড ভ্যানের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে অটোরিকশাটি দুমড়েমুচড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই পূজন মুণ্ডা নামে একজনের মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় আহত হন পূজনের বাবাসহ আরও ৫ জন। তাদের সবাইকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৌলভীবাজারের ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল ও সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সিলেটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পূজনের বাবা দীনবন্ধু মুণ্ডা (৫৫) ও মৌলভীবাজারে যাওয়ার পথে দীনবন্ধুর বড় ভাই রবীন্দ্র মুণ্ডা (৬০) মারা যান। নিহত ও আহতরা সকলেই জুড়ী উপজেলার বাসিন্দা।

এ ছাড়া এদিন সন্ধ্যায় উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের মিশন নামক এলাকায় ঝড়ে মাথায় গাছ ভেঙে পড়ে আব্দুল মতিন (৩২) নামে এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন। তিনি ওই ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং ওই বাজারের ব্যবসায়ী ছিলেন। সন্ধ্যার দিকে বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলযোগে নিজের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে যাওয়ার পথে তিনি এ ঘটনায় মারা যান।

এদিকে এদিন বিকেলে উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নের ভেলকুমা পুঞ্জিতে গাছ থেকে নিচে পড়ে রেনু মিয়া (৬০) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। দুপুরে তিনি পুঞ্জির একটি গাছে ডালপালা কাটতে গাছের ওপরে উঠেন। এ সময় অসাবধানতাবশত গাছ থেকে পড়ে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীপংকর ঘোষ এসব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন।